Thursday, December 23 2021

ফরাসি ভাষা জানলে সেনাবাহিনীতে চাকরি

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে নিয়োজিত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কন্টিনজেন্টের সঙ্গে কাজ করার জন্য অস্থায়ী ভিত্তিতে প্রয়োজনীয়সংখ্যক দোভাষী (ফরাসি ভাষা) নিয়োগে বিজ্ঞপ্তি (https://www.army.mil.bd/Job-Circulation-Details/job-circulation-for-civilian-french-interpreter-27) প্রকাশ করা হয়েছে। আগ্রহী প্রার্থীদের ডাকযোগে বা সরাসরি আবেদনপত্র পাঠাতে হবে।

  • পদের নাম: দোভাষী
    পদসংখ্যা: অনির্ধারিত
    যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা: প্রার্থীদের স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় অথবা ভাষা ইনস্টিটিউট থেকে ফরাসি ভাষায় কমপক্ষে ডিপ্লোমা (A-2) কোর্স পাসসহ স্নাতক অথবা সমমানের যোগ্যতাসম্পন্ন হতে হবে। করোনা পরিস্থিতিতে যদি কেউ A-2 পরীক্ষায় অংশ নিয়ে থাকেন, তবে ফল প্রকাশ না হলেও আবেদন করতে পারবেন। পরবর্তীকালে ফল প্রকাশের পর A-2 পরীক্ষায় কৃতকার্য সাপেক্ষে যোগ্য বিবেচিত হবেন। B-1 কোর্সসম্পন্ন ও উচ্চতর শিক্ষাগত যোগ্যতাসম্পন্ন ফরাসি ভাষায় পারদর্শী ও দোভাষী হিসেবে বাস্তব অভিজ্ঞতাসম্পন্ন প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। ফরাসি থেকে ইংরেজি, ইংরেজি থেকে ফরাসি, বাংলা থেকে ফরাসি ও ফরাসি থেকে বাংলা ভাষায় বাক্য বিনিময়, অনুবাদসহ ইংরেজি ও ফরাসি ভাষায় লেখা ও অনর্গল কথা বলায় পারদর্শী হতে হবে। এ ছাড়া কম্পিউটার বিষয়ে তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক জ্ঞান থাকতে হবে।
    বয়স: ১৯ জানুয়ারি ২০২২ তারিখে আবেদনকারীর বয়স ২৪ থেকে ৪৫ বছরের মধ্যে হতে হবে। বয়স প্রমাণের ক্ষেত্রে অ্যাফিডেভিট গ্রহণযোগ্য হবে না।
    চাকরির ধরন: এক বছরের চুক্তিভিত্তিক বা সর্বোচ্চ মিশন শেষ হওয়া পর্যন্ত।
    বেতন ও অন্যান্য সুযোগ–সুবিধ: মাসে ২ হাজার ৫৩২ ডলার (প্রায় ২ লাখ ১৭ হাজার ২০১ টাকা)। এ ছাড়া খাদ্য, বাসস্থান, চিকিৎসা, যানবাহন ও সামরিক পোশাক বিনা মূল্যে দেওয়া হবে।

শর্তাবলি

  • জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে নিয়োজিত বাংলাদেশি কন্টিনজেন্টের সঙ্গে মাঠপর্যায়ে কাজ করার জন্য শারীরিকভাবে যোগ্য ও সুঠাম দেহের অধিকারী এবং সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল থেকে মিশনের প্রয়োজন অনুযায়ী নির্ধারিত স্বাস্থ্য পরীক্ষায় যোগ্য হতে হবে।

  • যে প্রার্থীরা ইতিপূর্বে তিন বছর মেয়াদকাল দোভাষী হিসেবে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে নিয়োজিত ছিলেন এবং দোভাষী হিসেবে কর্মরত থাকাকালীন অনিচ্ছুক সনদপত্র প্রদান করেছেন, তাঁরা আবেদন করতে পারবেন না।

  • মিশন শেষে বাংলাদেশে প্রত্যাবর্তন করার পর অস্থায়ী নিয়োগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হবে। এরপর থেকে আর কোনো ভাতা ও সুযোগ-সুবিধাপ্রাপ্ত হবেন না।

  • সরকারি, আধা সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত ইত্যাদি প্রতিষ্ঠানে চাকরিরত যোগ্য প্রার্থীদের শর্তাবলি অনুসরণ করে যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দরখাস্ত পাঠাতে হবে।

আবেদন যেভাবে
নিজ নাম, পিতার নাম, বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা, জন্মতারিখ, জাতীয়তা, মুঠোফোন নম্বর ও সব শিক্ষাগত যোগ্যতার বিবরণ উল্লেখ করে দরখাস্তের সঙ্গে ৩ কপি পাসপোর্ট আকারের ছবি, জাতীয়তা সনদপত্র, সব শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতার সনদপত্রের সত্যায়িত কপিসহ আবেদনপত্র ডাকযোগে বা সরাসরি পাঠাতে হবে।

আবেদন ফি
‘AHQ, OO Dte Pte Fund’-এর অনুকূলে ৫০০ টাকার ব্যাংক ড্রাফট সংযুক্ত করতে হবে।

আবেদনপত্র পাঠানোর ঠিকানা: সেনা সদর, জিএস শাখা (ওভারসিজ অপারেশনস পরিদপ্তর), ঢাকা সেনানিবাস, ঢাকা।

আবেদনপত্র পাঠানোর শেষ সময়: ১৬ জানুয়ারি ২০২২

আবেদনপত্র পাঠানোর শেষ সময়: ১৬ জানুয়ারি ২০২২


RECENT NEWS

৪১তম বি.সি.এস পরীক্ষা- ২০১৯ এর মৌখিক পরীক্ষার সময়সূচি

লিংক থেকে সময়সূচি জেনে নিন

1 month ago

ওয়াটারএইডে চাকরি, বেতন ৮৭,০০০, ছুটি দুই দিন

আবেদনের শেষ তারিখ: ১০ ডিসেম্বর ২০২২

1 month ago